তামিম হাসান

প্রিয়ন্তি ও চাঁদ

স্বাধীন নিউজ ২৪.কম
প্রকাশ : জুলাই ৬, ২০১৯ ১০:৫২:৫৩ অপরাহ্ন
0
92
views

গল্পঃ প্রিয়ন্তি বায়না ধরেছে সে চাঁদ দেখবে।চাঁদের আলো দেখবে। এজন্য পড়া শেষ করে প্রিয়ন্তি তার বাবাকে বলল, “বাবা তুমি না বললে আজকে আমাকে চাঁদ দেখাবে?” প্রিয়ন্তির বাবা বলল হ্যা মা, একারণেই এখানে বসে আছি।অতঃপর প্রিয়ন্তি তার বাবার সাথে হাত ধরে বাড়ির ছাদে উঠলো। ছাদের ঠিক দক্ষিণ দিকে বসে প্রিয়ন্তি উজ্জ্বল চাঁদের দিকে একদৃষ্টিতে তাকিয়ে ছিলো।

শরতের রাত, আকাশে চাঁদ ঝলমল করছে।অপরূপ আকাশের পূর্নিমার চাঁদের আলোয় দূর শহরের বৃক্ষগুলো বাতাসে দোল খাচ্ছে।দূর দিগন্তের সবুজ ফসলের মাঠ, সাদা কাশফুলের দোল খেয়ে চাঁদের আলোয় ঝলমল করছে।দূর থেকে ভেসে আসছে ফুলের ঘ্রাণ। প্রিয়ন্তি খুব মনোযোগ দিয়ে দেখছিল প্রকৃতির এই অনিন্দ্য সৌন্দর্য। পূর্ণিমার রাতে এই ছোট শহরের প্রাকৃতিক পরিবেশ প্রিয়ন্তিকে মুগ্ধ করেছিল।

প্রিয়ন্তির বাবা প্রিয়ন্তিকে বলল,”চাঁদের আলোতে প্রাকৃতিক পরিবেশ দেখতে খুব সুন্দর লাগছে না!” প্রিয়ন্তি বলল, “হুমম অনেক ভালো লাগছে বাবা।” প্রিয়ন্তির বাবা বলল,জানিস চাঁদের এই অপরূপ মহনীয় রূপ শুধু শরৎ কালেই দেখা যায়।কারণ শীতে মেঘের কারণে চাঁদ তার আলোকে আমাদের কাছে অতো ভালোভাবে পৌছে দিতে পারেনা।প্রিয়ন্তি তার বাবাকে বলল, “বাবা, ছোট বেলার রূপ কথার বইয়ে পড়েছি চাঁদ এ নাকি মানুষ বসবাস করে! এটা কি সত্যি?”।

প্রিয়ন্তির বাবা একটু হেসে বলল, ” না মা এগুলো শুধু রূপকথা। তবে প্রিয়ন্তি শুনলে অবাক হবি, আমেরিকার মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্রের বিজ্ঞানীরা চাঁদ এ প্রবেশ করেছে এবং বিজ্ঞানীরা বলেছেন চাঁদ এ পাহাড় -পর্বত আছে।” প্রিয়ন্তি এসব শুনে বলে উঠলো, ” ওয়ান্ডারফুল!”।প্রিয়ন্তি তার বাবাকে বলল,”বাবা আমি চাঁদে যাবো!!! তার বাবা বলল ” তুমি অবশ্যই চাঁদে যাবে, শুধু চাঁদ নয় যেতে পারবে অন্য গ্রহ গুলোতেও।

তার জন্য তোমাকে পড়তে হবে সায়েন্স। হতে হবে বিজ্ঞানি, এখন থেকেই বিজ্ঞান চর্চা করতে হবে। দেখবে তুমি একদিন হয়ে উঠবে বিখ্যাত বিজ্ঞানি!! প্রিয়ন্তি তার বাবাকে বলল, ” বাবা ঠিক বলেছো আমাকে অনেক পড়া -শুনা করতে হবে,দেখতে হবে আকাশ ছোঁয়ার সপ্ন। তাহলেই আমি এগিয়ে যেতে পারব আমার সপ্নের গন্তব্যে । রাত বাড়তে লাগল চাঁদ আঁধারে মিলে গেল। প্রিয়ন্তি আর তার বাবা ঘরে গিয়ে ঘুমাতে গেল।

লেখকঃ তামিম হাসান, খুুলনা থেকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here