রাব্বানীর ঘোষণার পরই সেই খামারিকে ২০০ হাঁস দিলেন ছাত্রলীগ নেতা

স্বাধীন নিউজ ২৪.কম
প্রকাশ : জুন ১১, ২০১৯ ১১:৫৭:২০ অপরাহ্ন
0

সারাদেশঃ দুর্বৃত্তদের দেয়া বিষে ৪১৩টি হাঁস মারা যাওয়ায় ক্ষতিগ্রস্ত নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলার শারীরিক প্রতিবন্ধী খামারি আবুল কাশেমকে ২০০ হাঁস দিয়েছেন ছাত্রলীগের স্থানীয় এক নেতা।

PUB

সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানীর ঘোষণার পর মঙ্গলবার বিকেলে আবুল কাশেমের বাড়িতে গিয়ে ব্যক্তিগত উদ্যোগে তার হাতে ২০০ হাঁসের দাম ২৮ হাজার টাকা তুলে দেন জেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সোবায়েল আহমদ খান।

এসময় তার সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন জেলা ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক সৈয়দ আল রাকিব, সদস্য সাইফুল ইসলাম শুভ্র, মো. করিম, ওবায়দুর রহমান খান, সাইফুল ইসলাম লালন, জাহিদ হাসান প্রান্ত, তানভীর হাসান বাধন, জাহিদুল হাসান জিকু, তাকবির হোসেন, সাদ সাদেক, আব্দুল্লাহ আল মামুন, মো. মুরসালিন, রাকিব তুষার, মাহফুজুর রহমান পিয়াস, সানোয়ার সাকলাইন, সারিমূল ইসলাম সানি, সানিমূল ইসলাম তুহিন প্রমুখ।

এর আগে রোববার রাতে খামারি আবুল কাশেমকে ৮০০ হাঁস কিনে দেয়ার কথা জানিয়ে নিজের ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী।

সোবায়েল আহমদ খান বলেন, ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী ভাইয়ের স্ট্যাটাস দেখে আমি তার সঙ্গে কথা বলি। রাব্বানী ভাইয়ের নির্দেশে তার পক্ষ থেকে ব্যক্তিগত উদ্যোগে আজ (মঙ্গলবার) বিকেলে আবুল কাশেমের বাড়িতে গিয়ে ২০০ হাঁসের দাম ২৮ হাজার টাকা দিয়ে এসেছি।

এ ধরনের কাজে সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বানও জানান তিনি।

এ প্রসঙ্গে খামার মালিক আবুল কাশেম জানান, ছাত্রলীগ নেতারা আমাকে হাঁস কেনার টাকা দিয়েছেন। আমি এখন ছেলে-মেয়ে নিয়ে চলতে পারব।

উল্লেখ্য, রোববার বিকেলে উপজেলার বলাইশিমুল ইউনিয়নের ছবিলা গ্রামে শারীরিক প্রতিবন্ধী আবুল কাশেমের ৪১৩টি হাঁস বিষ দিয়ে মেরে ফেলে দুর্বৃত্তরা। মরে যাওয়া হাঁসের বাজার মূল্য প্রায় আড়াই লাখ টাকা। এসব হাঁসের ডিম বিক্রি করে সংসার চালাতেন তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here