সারাদেশঃ গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় এক ছাত্রীকে অ’নৈতিক প্রস্তাব দেওয়ায় মিলন হোসেন নামের এক শিক্ষককে বিদ্যালয় থেকে সাময়িকভাবে ব’হিষ্কার করা হয়ে। এ ব্যাপারে পাঁচ সদস্যের একটি ত’দন্ত কমিটি গঠন করেছে স্কুল কতৃপক্ষ। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, এর আগে একাধিক ছাত্রীকে উত্যক্ত ও অনৈকিত প্রস্তাব দেওয়ার জন্য আগেও একাধিকবার সালিশি বৈঠক হয়েছে। সর্বশেষ গত বুধবার অন্য এক শিক্ষার্থীকে এ প্রস্তাব দিলে ছাত্রীর অভিভাবক ঘটনাটি বিদ্যালয় কতৃপক্ষকে জানায়।

গত বৃহস্পতিবার বিদ্যালয় কতৃপক্ষ এক জরুরী সভার মাধ্যমে শিক্ষক মিলন হোসেনকে সাময়িকভাবে ব’হিষ্কার করে এবং পাঁচ সদস্যের ত’দন্ত কমিটি গঠন করেন। ত’দন্ত কমিটির প্রতিবেদনে দো’ষী প্রমাণিত হলে চূড়ান্ত সিন্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানা যায়।

তিনি শিক্ষার্তীদের সাথে শিক্ষকসুলভ কোনো আচরণ করেন না বলে জানান বিদ্যালয়টির প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম।
তবে সব অ’ভিযোগ নাকোচ করে শিক্ষক মিলন হোসেন জানান, ভালো শিক্ষক হিসেবে আমার সুনাম থাকায় আমার বি’রুদ্ধে ষ’ড়যন্ত্র চালাচ্ছে একটি চ’ক্র।

Leave a comment

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।