ফাও খেতে নিষেধ করায় দুটি ক্ষেতের কয়েক লক্ষাধিক টাকার বাঙ্গি কু’পিয়ে কে’টে ধ্বং’স করে দিয়েছে দু’র্বৃত্তরা। এ ঘটনাটি ঘটেছে রাজবাড়ীর কালুখালী উপজে’লার মৃগী উপজে’লার পাঁচু’রিয়া গ্রামের মাঠে। যদিও একজন জমির মালিক ওই ঘটনায় ১৭ জনকে আ’সামি করে কালুখালী থানায় একটি অভিযোগ দা’য়ের করেছেন।

জানা গেছে, ওই গ্রামের আব্দুল খালেক মন্ডলের ছেলে বাবন মন্ডল এবং শহর আলীর ছেলে সায়েদ মন্ডল বাড়ির অদূরে থাকা মাঠে প্রায় ৩ পাখি জমিতে বাঙ্গি আবাদ করেন।

বাবন মন্ডল জানান, প্রতিবছরের মতো এবারও জামি বড়গা নিয়ে তিনি বাঙ্গির আবাদ করেন। পার্শ্ববর্তী চরকুলটিয়া গ্রামের একদল দু’র্বৃত্ত মাঝে মধ্যেই তার ক্ষেতে এসে জো’রপূর্বক বিনামূল্যে বাঙ্গি খেয়ে ও নিয়ে যায়। গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার দিকে ওই দু’র্বৃত্তরা তার ক্ষেতে আসে। তারা ক্ষেতে পাকা বাঙ্গি না পেয়ে মোবাইলে ফোন দেয় এবং পাকা দুইটা বাঙ্গি ও লবণ নিয়ে ক্ষেতে আসতে বলে। তিনি ভ’য়ে তার ছোট ভাই তপন মন্ডলকে সাথে নিয়ে দুইটি বাঙ্গি ও লবণ নিয়ে আসেন। দু’র্বৃত্তরা বাঙ্গি খায়।

সে সময় তিনি তাদের জো’রপূর্বক বাঙ্গি নিয়ে যেতে নিষেধ করেন। এতে তারা ক্ষুব্দ হয় এবং তার ও তার ভাইকে বেধরক মা’রপিট করে। এর কিছু সময় পর দু’র্বৃত্তরা ক্ষেতে আসে এবং তার ও পার্শ্ববর্তী সায়েদ মন্ডলের ক্ষেতের কয়েক লক্ষাধিক টাকা মূল্যের বাঙ্গিগুলো কে’টে ধ্বং’স করে রেখে চলে যায়। পরবর্তীতে তারা ক্ষেতে এসে এই ঘটনা দেখতে পান।

মৃগী পুলিশ ত’দন্ত কেন্দ্রের আইসি পুলিশ পরিদর্শক কালাম খান জানান, শুক্রবার সকালে তিনি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। সেই সাথে দু’র্বৃত্তদের গ্রে’প্তার করতে অ’ভিযানও চা’লিয়েছেন। তবে তাদের আ’টক করা সম্ভব হয়নি। এ ঘটনায় চাষি বাবণ মন্ডল বা’দী হয়ে কালুখালী থানায় একটি অভিযোগ দা’য়ের করেছেন।

Leave a comment

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।