দুই মিনিটের কি’লিং মিশন

স্বাধীন নিউজ ২৪.কম
প্রকাশ : নভেম্বর 13, 2021 10:19:12 পূর্বাহ্ন
0
15
views

সারাদেশ: বাসা থেকে ডেকে নিয়ে রাজধানীর আদাবরে প্রকাশ্যে গম গবেষণা ইনস্টিটিউটের সাবেক মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা আনোয়ার সাহিদকে (৭২) ছু’রিকাঘাতে হ’’ত্যা করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় আদাবরের হলিল্যান্ড গলিতে (চিপা গলি) এক যুবক মাত্র দুই মিনিটের মধ্যে ওই বৃ’দ্ধকে ছু’রিকাঘাত করে পা’লিয়ে যায়।

ম’য়নাত’দন্তের জন্য ম’রদেহ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতাল ম’র্গে পাঠিয়েছে পুলিশ। আজ শুক্রবার রাতে এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত হ’’ত্যাকাণ্ডে জ’ড়িত স’ন্দেহে কাউকে আ’টক করতে পারেনি পুলিশ। নি’হতের ভাগনি সাবিহা নাহিদ জানান, আনোয়ার সাহিদের গ্রামের বাড়ি নীলফামারীর ডোমারে। দিনাজপুরের দশ মাইল এলাকায় গম গবেষণা ইনস্টিটিউটে প্রায় ১৫ বছর চাকরি করেন তিনি। সর্বশেষ জয়দেবপুরে কর্মরত অবস্থায় ইনস্টিটিউটের মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা হিসেবে অবসরে যান।

তিনি জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় জরুরি একটি ফোন পেয়ে বাসা থেকে বের হওয়ার সময় আনোয়ার সাহিদ সাবিহাদের বলেন, দিনাজপুর থেকে কেউ একজন তার সঙ্গে দেখা করতে এসেছেন। তার সঙ্গে দেখা করতেই শ্যামলী যাচ্ছেন। তবে ওই ব্যক্তির বি’ষয়ে কিছুই বলে যাননি আনোয়ার সাহিদ। রাতে নি’হতের মুঠোফোন থেকে কল করে সাবিহাদের সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে যেতে বলা হয়। তারা সেখানে গিয়ে দেখতে পান আনোয়ার সাহিদের নিথর দেহ পড়ে আছে হাসপাতালের স্টেচারে।

আনোয়ার সাহিদকে কল্যাণপুরের বাসা থেকে ডেকে নিয়ে পরিকল্পিতভাবে হ’’ত্যা করা হয়েছে দাবি করে সাবিহা নাহিদ বলেন, ‘ছি’নতাইকারীরা এই ঘটনা ঘটালে আমার মামার সঙ্গে থাকা মুঠোফোন ও মানিব্যাগও নিয়ে যেত। কিন্তু সেটা হয়নি।’ দ্রুত সময়ের মধ্যে মামার খু’নিদের গ্রে’প্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শা’স্তির দাবি জানান তিনি। হলিল্যান্ড গলির একটি বাসার নিরাপত্তাকর্মী মো. বাদশা মিয়া জানান, সেদিন সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে রাস্তায় চেঁচামেচি শুনে বাইরে গিয়ে তারা দেখেন- রাস্তায় পড়ে থাকা র’ক্তাক্ত একজনকে ঘিরে আছে কয়েকজন রিকশাচালক। এসময় রাস্তার উপরেই একটি ছু’রি পড়ে ছিল।

আদাবর থানার পরিদর্শক (ত’দন্ত) সেলিম হোসেন জানান, কয়েক বছর আগে স্ত্রীর সঙ্গে বিচ্ছেদ হয় আনোয়ার সাহিদের। এরপর থেকে ভাগনির সঙ্গে মিরপুরের কল্যাণপুর এলাকায় থাকতেন তিনি। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় কোনো এক ব্যক্তির ফোন পেয়ে তিনি শ্যামলীর হানিফ কাউন্টারে যাওয়ার জন্য বাসা থেকে বের হন। তিনি জানান, সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে শ্যামলীর হানিফ পরিবহনের বাস কাউন্টারের পাশেই হলিল্যান্ড গলিতে অচেনা একজন তাকে ছু’রিকাঘাত করে পা’লিয়ে যায়। স্থানীয়রা আ’শঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে নিয়ে গেলে রাত ১১টার দিকে চিকিৎসক তাকে মৃ’ত ঘোষণা করেন।

আদাবর থানার পরিদর্শক জানান, ঘটনাস্থলের আশপাশের সিসি ক্যামেরার ফুটেজ পর্যবেক্ষণ করে দেখা গেছে, হ’’ত্যাকাণ্ডটি ঘটে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টা ১৩ থেকে ৭টা ১৫ মিনিটের মধ্যে। এই সময়ের আগে অচেনা এক যুবককে পকে’টে হাত ঢুকিয়ে তিন-চার মিনিট ধরে ওই গলিতে ঘোরাঘুরি করতে দেখা গেছে। শ্যামলী রিং রোডের দিক থেকে আনোয়ার সাহিদ ওই গলিতে ঢোকার পর যুবকটি সামনের দিক থেকে এসে মুহূর্তের মধ্যে পকেট থেকে ছু’রি বের করে তার পেটে আ’ঘাত করে পা’লিয়ে যায়।

তিনি জানান, ছু’রিকাঘাতে ওই বৃ’দ্ধের ভুঁড়ি বেরিয়ে গেলে মাটিতে লু’টিয়ে পড়েন তিনি। ঘটনাস্থল থেকে একটি ছু’রি জ’ব্দ করা হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে- বাসা থেকে ডেকে নিয়ে পরিকল্পিতভাবে আনোয়ার সাহিদকে হ’’ত্যা করা হয়েছে। যে ছু’রিটি জ’ব্দ করা হয়েছে সেটি দিয়েই হ’’ত্যা করা হয়েছে ওই বয়বৃ’দ্ধকে। পুলিশের এই কর্মকর্তা আরও জানান,এ ঘটনায় এক বা একাধিক মানুষ জ’ড়িত। এ ঘটনায় মা’মলা প্রক্রিয়াধীন। কে বা কারা তাকে হ’’ত্যা করেছে, তা জানার চেষ্টা চলছে। হ’’ত্যার কারণ জানার পাশাপাশি হ’’ত্যাকারীকে গ্রে’প্তারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।