বোনের সাথে ঝগড়া, দুলাভাইয়ের ৩ দাঁত ভাঙলেন শ্যালিকা

স্বাধীন নিউজ ২৪.কম
প্রকাশ : নভেম্বর 11, 2021 10:54:58 অপরাহ্ন
0
21
views

বোনের সঙ্গে ঝ’গড়া করায় লো’হার চোঙার আ’ঘাতে মো: আব্দুল্লাহ নামে এক ব্যক্তির তিনটি দাঁত ভে’ঙে দিয়েছেন ক্ষু’ব্ধ শ্যালিকা। গত ৬ নভেম্বর রাত ৯টার দিকে রাজশাহী নগরীর শিরোইল কলোনির হাজরা পুকুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

তবে নিজের ছেলেদের অনুরোধে ও অন্যান্যদের মধ্যস্থতায় শ্যালিকাকে ক্ষমা করে দিয়েছেন সেই দুলাভাই।বৃহস্পতিবার দুপুরে ভু’ক্তভোগী মো: আব্দুল্লাহ নিজেই গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। আব্দুল্লাহ বলেন, আমার বাড়িতে বেড়াতে এসেছিলেন আমার শ্যালিকা। পরে লো’হার চোঙা দিয়ে আমার মুখে আ’ঘাত করেন তিনি। এতে আমার তিনটি দাঁত পড়ে গেছে।

তিনি বলেন, আমার স্ত্রীকে বলেছিলাম – তোমার বোন মোবাইল ফোনে কার সঙ্গে এতো চা’পাবাজি করছে, সে তো কোনোদিন স্কুলেই যায়নি। কিন্তু ফোনে বলছে ‘আমি ম্যাট্রিক পাস, এবার ইন্টারে পড়ছি’। এ কথা বলায় আমার স্ত্রীর সঙ্গে সামান্য ঝ’গড়া হয়। এরই মধ্যে হঠাৎ চুলার পাশে পড়ে থাকা একটি লো’হার চোঙা দিয়ে আমার চোয়ালের ও’পর আ’ঘাত করে শ্যালিকা। ওই আ’ঘাতেই আমার নিচের তিনটি দাঁত খুলে পড়ে গেছে।

তিনি আরো বলেন, আমি রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে গিয়ে চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়েছি। এ ঘটনায় থানায় একটি মা’মলাও করা হয়। তবে স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর, থানার ওসি ও আমার ছেলেদের অনুরোধে তাকে ক্ষমা করে দিয়েছি।

অ’ভিযুক্ত শ্যালিকা জানান, দুলাভাই আমার বোনকে প্রায় নি’র্যাতন করেন। সেদিনও আমার সামনে বোনের সাথে ঝ’গড়া শুরু করেন। এসময় বোনকে মা’রতে চেয়েছিলেন। তাই আমি প্র’তিবাদ করতে গিয়ে তাকে লো’হার চোঙা দিয়ে মে’রেছিলাম। তবে ওই ঘটনার মীমাংসা করে দিয়েছেন পুলিশ ও কাউন্সিলর।

জানতে চাইলে ১৯ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর তৌহিদুল হক সুমন গণমাধ্যমকে জানান, কিছুদিন আগে এ ধরনের একটি পারিবারিক ঘটনা ঘটেছিল। তবে সেটি আমার কাউন্সিলর কার্যালয়ে বসে মীমাংসা করে দিয়েছি।

চন্দ্রিমা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: ইমরান হোসেন জানান, এ ঘটনায় থানায় অ’ভিযোগ হয়েছিল। পরে এটির ত’দন্তভার দেয়া হয়েছিল এসআই পলা’শকে। তবে স্থানীয়ভাবে তারা বি’ষয়টির নিষ্পত্তি করে নেয়ায় ভু’ক্তভোগী আর মা’মলা করেননি। ফলে আমরা এ বি’ষয়ে আর কোনো পদক্ষেপ নিইনি।