‘আমি জীবন দিয়ে তোমাকে ভালোবেসেছিলাম, দেহ দিয়ে নয়’

স্বাধীন নিউজ ২৪.কম
প্রকাশ : নভেম্বর 8, 2021 03:58:21 অপরাহ্ন
0
15
views

ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ উপজে’লায় এক কলেজছাত্রী আত্মহ’’ত্যা করেছেন। তবে মৃ’ত্যুর আগে একটি চিরকুট লিখে গেছেন তিনি। সেখানে উঠে এসেছে, এক বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীর প্র’তারণার শি’কার হয়ে আত্মহ’’ত্যা করতে বা’ধ্য হন ওই ত’রুণী। তাদের সম্পর্কের বি’ষয়টি নিয়ে স্থানীয়ভাবে সালিস বসে টাকার পরিমাপে মীমাংসার চেষ্টা করে। এতে ক্ষো’ভে রোববার (৭ নভেম্বর) সকাল ১০টার দিকে নিজ বাড়ির টয়লেটে ফাঁ’স দিয়ে আত্মহ’’ত্যা করেন ওই ত’রুণী।

নি’হত ত’রুণীর নাম হাদিসা আক্তার পপি (১৭)। তিনি ময়মনসিংহ নগরীর মুমিনুন্নিছা স’রকারি মহিলা কলেজের উচ্চমাধ্যমিক দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী। তার বাড়ি ঈশ্বরগঞ্জ উপজলার উচাখিলা ইউনিয়নর মরিচারচর নামাপাড়া গ্রামে। ওই গ্রামের তহুর উদ্দিনের তিন মেয়ে ও এক ছেলের মধ্যে তৃতীয়। তার সঙ্গে প্রতিবেশী মোনায়েম মিয়ার প্রেমের সম্পর্ক গড় ওঠে। মোনায়েম একই গ্রামের মুক্তিযো’দ্ধা আমীর আলীর ছেলে।

মৃ’ত্যুর আগে একটি চিরকুট লিখে যায় পপি। পুলিশের মাধ্যমে হাতে পাওয়া চিঠিতে লেখা ছিল, ‘মোনায়েম তুমিই ভালো থেক। সরল মনে তোমাকে ভালোবেসেছিলাম। কিন্তু তুমি আমার ভালোবাসাটা বুঝলে না। আমি আমার এই কলঙ্কিত মুখ নিয়ে আর বেঁচে থাকতে চাই না। তোমাকে সরল মনে ভালোবেসে কী অ’পরাধ করেছিলাম জানি না। তুমি ভালো থেক। আমি তো তোমার কাছে আগে যাইনি, তুমিই তো আমাকে আগেই ভালোবেসেছো। আমি বুঝতে পারিনি তোমার অভিনয়। সুখে থেক। সারাটা জীবন অনেক ভালো থেক, এটাই চাই।’

চিঠিতে আরও লেখা হয়, ‘আমি বুঝতে পারিনি, তুমি আমার সঙ্গে কেন এমন করলে। কি ক্ষ’তি করেছিলাম তোমার এমন, জানি না। আমি জীবন দিয়ে তোমাকে ভালোবেসেছিলাম। দেহ দিয়ে নয়। তুমি শুধু আমার দেহটাই বেছে নিয়েছিলে। আমি তো তোমায় সরল মনে ভালোবেসেছিলাম।’ ত’রুণীর স্বজনরা জানান, গত কয়েকদিন আগে তাদের সম্পর্কের বি’ষয়টি জানাজানি হয়। মেয়েটি বিয়ের দাবি জানায়। পরে বি’ষয়টি মীমাংসার জন্য স্থানীয়ভাবে সালিসও বসে। এতে ৫ লাখ টাকায় বি’ষয়টি মীমাংসার জন্য প্রস্তাব দেওয়া হয় মেয়েটির পরিবারকে। কিন্তু মেয়েটি তাতে রাজি হয়নি। ওই অবস্থায় রোববার আত্মহ’’ত্যা করেন পপি। সুত্রঃ বিডি ২৪ লাইভ