‘মনোনয়ন দেবেন বলে যে টাকা নিয়েছেন, সেটা আগে ফেরত দিন’

স্বাধীন নিউজ ২৪.কম
প্রকাশ : নভেম্বর 2, 2021 12:24:41 অপরাহ্ন
0
18
views

রাজনীতি: লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে চরকাদিরা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বাণিজ্যের অভিযোগ তুলেছেন চেয়ারম্যান প্রার্থী আশরাফ উদ্দিন রাজন (রাজু)। তিনি উপজে’লা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট এ কে এম নুরুল আমিন রাজুর কাছে মনোনয়নের জন্য দেওয়া টাকা ফেরত চাইলেন। আশরাফ উদ্দিন উপজে’লা আওয়ামী লীগের সদস্য ও দলের বিদ্রোহী প্রার্থী।

গতকাল সোমবার (১ নভেম্বর) সন্ধ্যায় উপজে’লার ফজুমিয়ারহাট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে নির্বাচনী পথসভার বক্তব্যে নুরুল আমিন রাজুকে তুলোধুনো করা হয়। এ সংক্রান্ত একটি ভিডিও রাতে কালের কণ্ঠের হাতে এসেছে। প্রার্থী রাজু বক্তব্যে বলেন, যে সমস্ত আওয়ামী লীগ নেতারা নৌকার মনোনয়ন দেবেন বলে টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন কিন্তু নৌকা দেন নাই, টাকাও ফেরত দিচ্ছেন না, আমি সেই টাকা ফেরত চাই। নুরুল আমিন রাজুর কাছে টাকা ফেরত চাইলে তিনি আমাকে বি’দ্রোহী প্রার্থী হিসেবে ভোটের মাঠে নামান, ৫ লাখ টাকা দেওয়ার আশ্বাসও দেন।

কিন্তু আমি তার টাকা চাই না। দলীয় মনোনয়ন দেবেন বলে যে টাকা নিয়েছেন, আপনি আমার সেই টাকা আগে ফেরত দিন। এখন টাকা চাওয়ায় তিনি আমাকে চাঁ’দাবাজি মা’মলার হু’মকি দিচ্ছেন। মনে রাখবেন, মি’থ্যা মা’মলা করলে চরকাদিরা-কমলনগরের মানুষ আপনাকে জুতাপেটা করবে, ঝাড়ুপেটা করবে, ঝাড়ুমিছিল বের করবে। দলীয় মনোনয়ন দেওয়ার কথা বলে আওয়ামী লীগ নেতা ইব্রাহিম বাবুল মোল্লার কাছ থেকেও ৩৫ লাখ টাকা নেওয়া হয়েছে।

উপজে’লা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদককে উদ্দেশ্য করে রাজু আরও বলেন, কমলনগরের আওয়ামী লীগকে আপনি ধ্বং’স করে দিয়েছেন। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ যদি সত্য হয়ে থাকে, তাহলে মনোনয়ন বাণিজ্যের কারণে আপনাকে দল থেকে ব’হিষ্কার করতে হবে। ওইপথ সভায় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডালিম কুমার দাসসহ অন্যরা বক্তব্য রাখেন।

এসময় বক্তারা প্রশাসনের কাছে নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবি জানান। এ ব্যাপারে বক্তব্য জানতে রাত সাড়ে ১১টার দিকে কমলনগর উপজে’লা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এ কে এম নুরুল আমিন রাজুর মোবাইল ফোনে কল করলে তিনি রিসিভ করেননি।