গোপালগঞ্জে ছাত্রীকে কুপ্রস্তাব দিয়ে নারীদের ধোলাই খেল প্রধান শিক্ষক

স্বাধীন নিউজ ২৪.কম
প্রকাশ : অক্টোবর 31, 2021 10:28:45 পূর্বাহ্ন
0
14
views

সারাদেশ: গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজে’লায় এক ছাত্রীকে কুপ্রস্তাব দেওয়ায় ২২নং শৌলদহ মুশুরিয়া স’রকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক গুরুদাস মিস্ত্রীকে সাময়িকভাবে ব’হিষ্কারসহ ওই বিদ্যালয় থেকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।এর আগে ওই ছাত্রীর মা নারীদের ডেকে এনে ওই শিক্ষককে পি’টিয়ে অ’বরুদ্ধ করেন। শিক্ষক গুরুদাস মিস্ত্রী উপজে’লার রামশীল ইউনিয়নের মুশুশিয়া গ্রামের ভদ্রকান্ত মিস্ত্রীর ছেলে।

গুরুদাস মিস্ত্রীকে সাময়িকভাবে ব’হিষ্কার ও প্রত্যাহারের বি’ষয়টি নিশ্চিত করেছেন উপজে’লা শিক্ষা অফিসার অরুণ কুমার ঢালী। অ’ভিযোগে জানা গেছে, ২২নং শৌলদহ মুশুরিয়া স’রকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক গুরুদাস মিস্ত্রী দীর্ঘদিন ধরে ওই বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির এক ছাত্রীকে কুপ্রস্তাব দিয়ে উ’ত্ত্যক্ত করে আসছিল। এরই সূত্র ধরে গত বৃহস্পতিবার শিক্ষক গুরুদাস মিস্ত্রী ওই ছাত্রীকে ছুটির পর বিদ্যালয়ে থাকতে বলে।

এরপর শিক্ষক গুরুদাস মিস্ত্রী ওই ছাত্রীকে শ্লী’লতাহা’নির চেষ্টা করে। এ সময় ওই ছাত্রী দৌড়ে বাড়িতে গিয়ে বি’ষয়টি তার মাকে অবহিত করে। ওই ছাত্রীর মা শনিবার এলাকার নারীদের নিয়ে বিদ্যালয়ে এসে গুরুদাস মিস্ত্রীকে মা’রধর করে লাইব্রেরিতে অ’বরুদ্ধ করে রাখেন। খবর পেয়ে কোটালীপাড়া থানা পুলিশ ও উপজে’লা শিক্ষা অফিসার অরুণ কুমার ঢালী ঘটনাস্থলে ছুটে গিয়ে জনরোষ থেকে ওই শিক্ষককে উ’দ্ধার করেন।

উপজে’লা শিক্ষা অফিসার অরুণ কুমার ঢালী বলেন, আমি ঘটনাস্থলে গিয়ে ঘটনার সত্যতা পেয়ে সাথে সাথে ওই শিক্ষককে সাময়িকভাবে ব’হিষ্কার এবং ওই বিদ্যালয় থেকে তাকে প্রত্যাহার করেছি। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে আলাপ করে গুরুদাস মিস্ত্রীর বি’রুদ্ধে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। কোটালীপাড়া থানার ওসি (ত’দন্ত) মো. জাকারিয়া বলেন, শিক্ষক গুরুদাস মিস্ত্রীকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত এবং ওই বিদ্যালয় থেকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।