গভীর রাতে হাজির দুই শিক্ষিকা, রুমে না আসায় লা’শ হলো যুবক

স্বাধীন নিউজ ২৪.কম
প্রকাশ : সেপ্টেম্বর 28, 2021 12:38:25 অপরাহ্ন
0
44
views

সারাদেশ: রাজশাহীতে মজিবুর রহমান নামের এক ব্যক্তির ঝু’লন্ত লা’শের ত’দন্ত করতে গিয়ে বেরিয়ে এসেছে সাভারে একটি বেস’রকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই শিক্ষিকার ভ’য়ংকর ফাঁ’দের র’হস্য। পুলিশ জানিয়েছে, শিক্ষকতার পরিচয়ের আড়ালে মানুষকে ফাঁ’দে ফে’লে ব্ল্যা’কমেইল করতেন দুই নারী। এমন কাণ্ডে যুক্ত দুজনকে গ্রে’ফতার করা হয়েছে।

তারা হলেন- আইরিন ইয়াসমিন লিজা (৩৪) ও শামীমা আক্তার (২৪)। আইরিনের গ্রামের বাড়ি নওগাঁর মান্দা উপজে’লার বালিচ গ্রামে। আর শামীমা ঢাকার সাভারের ডেন্ডাবর নতুনপাড়ার বাসিন্দা। দুজনেই সাভারের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক। রাজশাহী মহানগরীর বোয়ালিয়া থানা পুলিশ ঢাকা থেকে রোববার রাতে তদের গ্রে’ফতার করা। তাদের বি’রুদ্ধে মজিবুর রহমান নামে এক ব্যক্তিকে আত্মহ’’ত্যার প্ররোচণা দেওয়ার অ’ভিযোগ আনা হয়েছে।

সোমবার দুপুরে রাজশাহী মহানগর পুলিশের (আরএমপি) কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিক তার কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে এসব তথ্য জানান। পুলিশ জানায়, মজিবুর রহমান রাজশাহীতে প্লট কেনাবেচা এবং প্রাইভেটকার ভাড়া দেওয়ার ব্যবসা করতেন। গত ৭ ফেব্রুয়ারি নগরীর উপশহরের দুই নম্বর সেক্টরের একটি ভাড়া বাসা থেকে তার ঝু’লন্ত ম’রদেহ উ’দ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় তার ছেলে থানায় একটি অপমৃ’ত্যুর মা’মলা করেছিলেন। সেই মা’মলার ত’দন্ত করতে গিয়ে দুই নারী শিক্ষকের সম্পৃক্ততার বি’ষয়টি বেরিয়ে আসে।

এরপরই তাদের গ্রে’ফতার করা হয়। তাদের কাছ থেকে মৃ’ত মজিবুর রহমানের মোবাইল উ’দ্ধার করা হয়েছে। কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিক বলেন, শিক্ষকতা পেশার আড়ালে এই দুই নারী মানুষকে ফাঁ’দে ফে’লে ব্ল্যা’কমেইল করতেন। জি’জ্ঞাসাবাদে আইরিন জানিয়েছেন, মজিবুর রহমানের সঙ্গে তার অন্তরঙ্গ সম্পর্ক ছিল। ৬ ফেব্রুয়ারি তারা দুজন স্বেচ্ছায় মজিবুরের বাড়ি এসেছিলেন। রাতে তারা মজিবুরের পাশের ঘরে শুয়েছিলেন। তখন মজিবুর রহমান মেসেঞ্জারের মাধ্যমে আইরিনকে তার ঘরে ডাকেন।

আইরিন না গেলে মেসেঞ্জারেই তাদের বা’গবি’ত’ণ্ডা হয়। এরপর মজিবুর জানান, রাত ৩টার মধ্যে আইরিন না গেলে তিনি আত্মহ’’ত্যা করবেন। তখন আইরিন মেসেঞ্জার এবং এসএমএসের মাধ্যমে মজিবুর রহমানকে মরতেই বলেন। অভিমানে মজিবুর গ’লায় ফাঁ’স দিয়ে আত্মহ’’ত্যা করেন। পরে সকালে আইরিন ও শামীমা তার ঝু’লন্ত লা’শ দেখে বাড়ি থেকে মজিবুরের মোবাইল, বাড়ির চাবি এবং নগদ চার লাখ টাকা ও কিছু কাগজপত্র নিয়ে পা’লিয়ে যান।

আরএমপি কমিশনার আরো বলেন,এই দুই নারী ব্ল্যা’কমেইল চ’ক্রের সঙ্গে জ’ড়িত বলে প্রাথমিকভাবে প্রতিয়মান হয়েছে। দুজনকে মজিবুরের আত্মহ’’ত্যার প্ররোচণার মা’মলায় গ্রে’ফতার দেখানো হয়েছে।