‘নতুন মিশনে’ মান্না-নুর

স্বাধীন নিউজ ২৪.কম
প্রকাশ : সেপ্টেম্বর 26, 2021 12:05:05 অপরাহ্ন
0
26
views

রাজনীতি: সময়-সুযোগ পেলেই দেশবি’রোধী চ’ক্রান্তে লিপ্ত হওয়া বিএনপি ও জামায়াতের বেশ পুরনো অভ্যাস। সেই ধারাবাহিকতায় এবারো এ দুটি দলের অর্থায়নে নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহামুদুর রহমান মান্না ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর দেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতিকে উত্তপ্ত করার ‘নতুন মিশনে’ নেমেছেন। বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে, দেশে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে অতীতের মতো আবারো জ্বা’লাও-পোড়াও রাজনীতি শুরুর পাঁয়তারা করছে বিএনপি-জামায়াত।

এরই অংশ হিসেবে ক্যাম্পাস কেন্দ্রিক না’শকতার নানা পরিকল্পনা করছেন বি’তর্কি’ত এ দুই সাবেক ছাত্রনেতা। লন্ডনে প’লাতক দ’ণ্ডপ্রাপ্ত বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের প্রচ্ছন্ন নির্দেশনায় তারা এমনটা করছেন এবং এরই মধ্যে অনেকটা অগ্রসরও হয়েছেন। এদিকে এমন পরিকল্পনা এবারই প্রথম নয়, এর আগেও করা হয়েছিল। এর আগে না’শকতার পরিকল্পনার আলাপচারিতার অডিও রেকর্ড ফাঁ’স হলে পুলিশের হাতে আ’টক হন মাহমুদুর রহমান মান্না। জি’জ্ঞাসাবাদে স্বীকারও করেন ঘটনায় সংশ্লিষ্ট থাকার কথা।

তবে দুঃ’খজনক হলেও সত্য ওই ঘটনায় কোনো আফসোসই ছিলো না মান্নার। বরং হাসিমুখে জি’জ্ঞাসাবাদে মান্না বলেছিলেন, রাজনীতির গতিপথ বদলাতে গেলে লা’শের প্রয়োজন হয়! সম্প্রতি জানা গেছে, তিনি আবারো পুরনো সেই পথেই হাঁটতে যাচ্ছেন। এরই মধ্যে ‘মানুষ হ’’ত্যা’র লক্ষ্যে অনলাইন ও অফলাইন- এ দুই মাধ্যমেই করেছেন বৈঠক। অণুজপ্রতিম সাবেক ডাকসু ভিপি নুরুল হক নুরের সঙ্গে করা হয়েছে শলা-পরামর্শও।

বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে, এ অর্থায়নে বিএনপি-জামায়াতের সম্মিলিত প্রয়াস হলেও এতে বিশেষ ভূমিকা রাখছেন তারেক রহমান। অর্থের সিংহভাগই তার কোষাগার থেকে দেওয়া হচ্ছে। পাশাপাশি দিচ্ছেন সার্বিক দিক-নির্দেশনাও। রাজনৈতিক বিশ্লেষকেরা বলছেন, তারেক গভীর জলের মাছ। ‘ধরি মাছ না ছুঁই পানি’ করে পুরো প্ল্যানটা সাজিয়েছেন। আর নামে মাত্র সামনে রেখেছেন মান্না ও নুরকে। নেপথ্যের কলকাঠি সে-ই নাড়ছে।

তারা আরো বলেন, এর আগেও এ ধরনের বি’তর্কি’ত কর্মকাণ্ডের তথ্য ফাঁ’স হওয়ায় নেপথ্যে নায়কের ভূমিকায় সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে তারেক রহমানকে। তবে ভু’ল থেকে কখনোই শিক্ষা নেয়নি তারেক। তাদের মতে, আর এর ফলেই বিএনপি এখন ‘কোমর ভাঙা’ রাজনৈতিক দলে পরিণত হয়েছে। বিএনপিকে নিয়ে জনগণ এখন কথায় কথায় পরিহাস করে। আর যু’দ্ধাপরাধী জামায়াতের গায়ে লেগেছে স’ন্ত্রাসী ও বো’মাবাজ দলের তকমা।