দোলনার দড়িতে শুয়ে খেয়াঘাটে, নৌকায় সন্তান প্রসব

স্বাধীন নিউজ ২৪.কম
প্রকাশ : জুলাই 31, 2021 07:22:59 অপরাহ্ন
0
11
views

হাসপাতালে নেওয়ার পথে নৌকাতেই পুত্র সন্তান প্রসব করলেন প্রসূতি। আজ শনিবার দুপুর দেড়টার দিকে সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার বুড়িগোয়ালিনী খেয়াঘাটে এ ঘটনা ঘটে। শ্যামনগর উপজেলার পদ্মপুকুর ইউনিয়নের চন্ডিপুর গ্রামের ইমরান হোসেন জানান, তার স্ত্রী কেয়ামনি (২০) প্রথম সন্তান সম্ভবা। গত শুক্রবার মধ্যরাতে তার প্রসব যন্ত্রণা শুরু হয়। সন্তান প্রসবের জন্য গ্রাম্য চিকিৎসক ও ধাত্রী ডেকে আনা হয়। তারা আপ্রাণ চেষ্টা করেন, নরমাল ডেলিভারির জন্য।

দেরী হওয়ায় প্রসূতিও যন্ত্রণা কাতর প্রসূতির শারীরিক অবস্থাও সংকটাপন্ন হয়ে ওঠে। শনিবার বেলা ১২টা পর্যন্ত সব চেষ্টা যখন ব্যর্থ তখন শুরু হয় হাসপাতালে। হাসপাতালে নেওয়ার দৌড় ঝাপ। কিন্তু ইচ্ছা করলেই তো তাকে আর হাসপাতালে নেওয়া সম্ভব নয়। শ্যামনগরের দ্বীপ ইউনিয়ন চন্ডিপুর থেকে উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লক্সে অনেক দূর। যোগাযোগ ব্যবস্থা বলতে নৌকা আর নদী পথই ভরসা। বর্ষা মৌসুমে এলাকার মাটির রাস্তারও বেহাল অবস্থা। ওই রাস্তায় বর্ষাকালে সাইকেল ভ্যান কিছুই চলে না।

প্রসূতি কেয়ামনির শ্বশুর ইব্রাহিম হোসেন জানান, নিরুপায় হয়ে যন্ত্রণাকাতর বৌমাকে দোলনার দড়ির ওপর শুইয়ে তার ওপর বাঁশ বেধে কাঁধে নিয়ে খোলপেটুয়া নদীর পাতাখালি খেয়াঘাটে নেওয়া হয়। সেখানে নৌকা খুঁজে ভাড়া চুক্তি করতে আরো খানিটা সময় দেরি হয়ে যায়। পরে খেয়া পারাপারের জন্য রাখা ইঞ্জিন চালিত একটি নৌকায় প্রসূতি কেয়া মনিকে নিয়ে রওনা দেওয়া হয় উপজেলার নওয়াবেকী খেয়া ঘাটের উদ্দেশ্যে। সঙ্গে ধাত্রীসহ পরিবারের গুরুত্বপূর্ণ সদস্যরাও। সেখানে পৌঁছে সড়ক পথে শ্যামনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পৌঁছতে পাড়ি দিতে হবে আরো ১২ কিলোমিটার। এরই মধ্যে দুপুর দেড়টার দিকে নৌকার মধ্যেই একটি পুত্র সন্তানের ওই প্রসূতি মা।

বিকালে কেয়ামনির শ্বশুর ইব্রাহিম হোসেন জানান, বর্তমানে প্রসূতি মা ও নবজাতক দু’জনেই সুস্থ আছে। একটু ভালো মানের চিকিৎসা ও প্রসূতিসহ নবজাতকের যাতে কোনো সমস্যা না হয় সেজন্য তাদের শ্যামনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। তারা সেখানে ডাক্তার ও নার্সদের তত্ত্বাবধানে ভালো আছেন। প্রসঙ্গত, গত ছয় মাসে দুই জন প্রসূতি উপজেলার বুড়িগোয়ালিনী খেয়াঘাটে পৌঁছানোর আগেই নৌকার মধ্যেই সন্তান প্রসব করেছেন। সুত্রঃ কালের কণ্ঠ