‘শ্বশুরবাড়ি থেকে ঈদে দাওয়াত না পাওয়ায়’ স্ত্রীকে পিটিয়ে হ”ত্যা

স্বাধীন নিউজ ২৪.কম
প্রকাশ : জুলাই 25, 2021 03:50:00 অপরাহ্ন
0
19
views

কোরবানির ঈদে শ্বশুরবাড়ি থেকে দাওয়াত না পাওয়ায় ঝিনাইদহের শৈলকুপায় স্ত্রী সাথী খাতুনকে (৩০) পিটিয়ে হত্যার পর ঘরে ঝুলিয়ে রাখার অভিযোগ উঠেছে স্বামী ফজলু মণ্ডলের বিরুদ্ধে। শনিবার রাতে উপজেলার ৬ নম্বর সারুটিয়া ইউনিয়নের নাদপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। ঘটনার পর থেকে সাথীর স্বামী, শ্বশুর ও শাশুড়ি পলাতক বলে জানা গেছে। সাথী খাতুনের বাবা একই ইউনিয়নের ভাটবাড়িয়া গ্রামের নজরুল মণ্ডল জানান, তার মেয়ের স্বামী ফজলু ও শ্বশুর বারিক মণ্ডল মাদকাসক্ত।

সাথীর সংসারে রয়েছে দুটি সন্তান। বিয়ের পর থেকেই প্রতিনিয়ত তার মেয়েকে বিভিন্নভাবে নির্যাতন করে আসছে। কোরবানির ঈদে আর্থিক অনটনের কারণে জামাইকে দাওয়াত না দেওয়ার অপরাধে শনিবার দিনে ও রাতে সাথীকে শারীরিকভাবে নির্যাতনের পর তিনি মারা যান। মৃত্যুর পর আত্মহত্যার নাটক সাজাতে ঘরের বারান্দায় তার মেয়েকে ঝুলিয়ে রাখা হয়। রোববার সকাল ৭টার দিকে তিনি তার মেয়ের মৃত্যু সংবাদ পান। ঘটনার পর পরই তার জামাই ফজলু ও ফজলুর বাবা বারিক মণ্ডলসহ বাড়ির সবাই পলাতক।

সাথীর মেয়ে শারমীন জানায়, শনিবার সকালে তার দাদা-দাদী মায়ের বুকের উপর উঠে নির্যাতন করে। তখন থেকেই তার মা আর কথা বলতে পারেনি। ঘটনার তদন্তকারী কর্মকর্তা শৈলকুপা থানার এসআই মো. রেজাউল ইসলাম বলেন, সাথী ও তার স্বামী ফজলুর মধ্যে দীর্ঘদিন পারিবারিক অশান্তি ছিল। নিহতের সুরতহাল রিপোর্টে শরীরের বিভিন্ন স্থানে নির্যাতনের কালো দাগ ও গলায় রশির চিহৃ পাওয়া যায়। সাথীর মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঝিনাইদহ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। সুত্রঃ সমকাল