গো’পনে তালাক দিয়ে শ্বশুরবাড়িতে স্ত্রী’র সঙ্গে রাত্রিযাপন! সকালে এলো নোটিশ

স্বাধীন নিউজ ২৪.কম
প্রকাশ : জুন 5, 2021 01:42:08 অপরাহ্ন
0
34
views

প্রায় দুই বছর আগে দুই লাখ টাকা যৌ’তুক নিয়ে বিয়ে করেন ফরিদ মিয়া (২৫)। এর মধ্যে চাপ প্রয়োগ করে একাধিকবার আরো যৌ’তুক নেন। সর্বশেষ বিদেশ যাওয়ার কথা বলে আরো দুই লাখ টাকা দাবি করে পাননি। এতে ক্ষি’প্ত হয়ে কাউকে না জানিয়ে গত ১১ দিন আগে স্ত্রী’কে তা’লাক দেয় কাজী অফিসে। কিন্তু তালাকের কথা আদৌ জানতেন না স্ত্রী’ ও শ্বশুরবাড়ির লোকজন।

তালাক দিয়ে গত বুধবার ফরিদ মিয়া শ্বশুরবাড়িতে বেড়াতে যান। স্ত্রী’র সঙ্গে রাত্রী যাপনের পর চাহিদামতো কিছু টাকা হাতিয়ে নেওয়ার জন্য অ’পেক্ষা করছিলেন তিনি। পরদিন বৃহস্পতিবার দুপুরে জামাই আপ্যায়নের সময় পিয়ন বাড়িতে গিয়ে স্ত্রী’কে নাম ধরে ডেকে হাতে একটি খাম ধরিয়ে স্বাক্ষর নেয়। আগ্রহ হয়ে খাম খোলার পর ভেতরে পাওয়া যায় তালাকের নোটিশ। হতভম্ব হয়ে পড়েন গৃহক’র্তাসহ বাড়ির সকলেই। এক পর্যায়ে ফরিদকে বেঁধে থা’না-পু’লিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়। এমন ঘটনা ঘটেছে ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজে’লার আচারগাঁও ইউনিয়নের সিংদই গ্রামে।

ওই গ্রামেই গৃহবধূর বাবার বাড়ি। ফরিদ মিয়া নান্দাইল পৌরসভা’র পাঁচ নম্বর ওয়ার্ডের চারিআনিপাড়া মহল্লার বাসিন্দা। না জানিয়ে তালাক দেওয়া ও পরে প্রতারণা করে শারীরিক স’ম্পর্ককে ধ’র্ষণ উল্লেখ করে ফরিদ মিয়াকে অ’ভিযু’ক্ত করে নারী ও শি’শু নি’র্যাতন দমন আইনে নান্দাইল মডেল থা’নায় মা’মলা করেছেন স্ত্রী’। পু’লিশ ফরিদ মিয়াকে ওই মা’মলায় গ্রে’প্তার দেখিয়ে আজ শুক্রবার আ’দালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছে।

ওই নারীর বাবা বলেন, ফরিদ তার মে’য়ের সঙ্গে জঘন্য প্রতারণা করেছে। আমি তার কঠোর শা’স্তি দাবি করছি।

মা’মলার বিবরণে ফরিদের স্ত্রী’ অ’ভিযোগ করেন, গত দুবছর আগে তাদের বিয়ে হয়। গত দুই বছরে কয়েক দফায় বেশ কিছু টাকাও দেওয়া হয়। গত চার-পাঁচ মাস আগে যৌতুক হিসাবে দুই লাখ টাকা এনে দেওয়ার জন্য ফরিদ তাকে নি’র্যাতন করতেন। কিন্তু একসাথে দুই লাখ টাকা দেওয়া সম্ভব ছিল না বলে তিনি স্বামীর নি’র্যাতন মুখ বুজে সহ্য করতেন। তারপরও দুই লাখ টাকা আনার জন্য গত ১০ মে তাকে জো’র করে বাবার বাড়িতে পাঠানো হয়। গত বুধবার রাতে ফরিদ মিয়া তাদের বাড়িতে আসে। রাতে তারা স্বামী-স্ত্রী’র মতো এক সঙ্গে এক ঘরে ছিলেন। পরদিন ডাক পিয়নের মাধ্যমে তালাকের নোটিশ পান। নোটিশে গত ২৩ মে ফরিদ তাকে তালাক দিয়েছে বলে উল্লেখ রয়েছে।

নান্দাইল থা’নার ভা’রপ্রাপ্ত কর্মক’র্তা (ওসি) মোহাম্ম’দ মিজানুর হমান আকন্দ বলেন, এ ঘটনায় ওই নারী বাদী হয়ে থা’নায় এজাহর দিলে সেটি মা’মলা হিসাবে নথিভুক্ত করা হয়েছে। ফরিদ মে’য়েটির সঙ্গে অ’ভিনব প্রতারণা করে