বিয়ের পর ‘কুমারীত্ব পরীক্ষায়’ ফেল বউ, এরপর…

স্বাধীন নিউজ ২৪.কম
প্রকাশ : এপ্রিল 11, 2021 05:49:54 অপরাহ্ন
0
16
views

মেয়েদের সুরক্ষা নিয়ে যেখানে এত আন্দোলন-প্র’তিবাদ, সেই দেশে আজও এমন ঘটনা ঘটতে পারে তা ভেবে আঁতকে উঠছে সবাই। বলছি ভারতের কথা। দেশটির মহারাষ্ট্রে দুই বোনের বিয়ে ভে’ঙে গেছে, কারণ তারা নাকি কুমারীত্ব পরীক্ষায় ফেল করেছেন। যদিও দেশটিতে এই ধরণের পরীক্ষা করা সম্পূর্ণ বেআইনি। জিনিউজ জানিয়েছে, বিয়ের কিছুদিন পর তাদের স্বামী গ্রাম্য পঞ্চায়েতে তা’লা’কের আবেদন জানান। তাদের অ’ভিযোগ স্ত্রীরা কুমারীত্ব পরীক্ষায় ফেল করেছে।

দুর্ভাগ্যের বি’ষয় তাদের সেই আবেদনে সম্মতি দিয়েছে পঞ্চায়েতও। এ ঘটনায় স্বামী, শাশুড়ি এবং পঞ্চায়েতের বি’রুদ্ধে মা’মলা দায়ের করা হয়েছে। দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দুই বোনকে বিবাহ বিচ্ছেদের নির্দেশ দিয়েছিলেন দু’জনের স্বামী, তার শাশুড়ি ও পঞ্চায়েতের সদস্যরা। তাদের বি’রুদ্ধে মা’মলা দা’য়ের করা হয়েছে। মহারাষ্ট্র পুলিশ বা’দী হয়ে অ’ভিযুক্তদের বি’রুদ্ধে ভারতীয় দ’ণ্ডবিধি এবং মহারাষ্ট্র সামাজিক বয়কট (প্রতিরোধ, নি’ষিদ্ধকরণ ও প্রতিরোধ) আইনের অধীনে মা’মলা করেছে।

দুই বোনের অ’ভিযোগ, বিয়ের পরে তাদের দু’জনকে শ্বশুরবাড়িতে আলাদা কক্ষে নিয়ে কুমারীত্ব পরীক্ষা করা হয়। জানানো হয়, এটাই নাকি তাদের ঐতিহ্য। পরে তারা দাবি করে, দু’জনই কুমারীত্ব পরীক্ষায় ব্যর্থ হয়েছেন। এরপর অ’ভিযোগ করা হয় তাদের বিয়ের আগেই অন্য কারও সঙ্গে দৈহিক সম্পর্ক ছিল। সুত্রঃ সমকাল