ঝর্ণার লেখা ২০০ পৃষ্ঠার ৩টি ডায়েরিতে পাওয়া গেল যেসব চাঞ্চল্যকর তথ্য

স্বাধীন নিউজ ২৪.কম
প্রকাশ : এপ্রিল 9, 2021 02:58:23 অপরাহ্ন
0
493
views

গত ৩ এপ্রিল এক না’রীকে নিয়ে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে রয়্যাল রিসোর্টে অবকাশ যাপনের সময় হা’তেনা’তে ধ’রা পড়েন হে’ফাজতে ই’সলাম নেতা মামুনুল হক। তিনি দা’বি করেন, ওই না’রী তার দ্বিতীয় স্ত্রী। তবে ঘটনার পর প্রায় এক ডজন অডিও-ভিডিও ফাঁ’স হওয়ার কারণে প্রকাশ্যে এসেছে হে’ফাজত নেতা মা’ওলানা মামুনুল হকের অ’নৈতিক ক’র্ম। তাঁর ‘মানবিক বিয়ে’ গল্পের অসারতাও প্রমাণিত হয়েছে।

মা’ওলানা মামুনুল হকের সঙ্গে থাকা ওই না’রীর নাম জান্নাত আরা ঝর্ণা (২৭)। আট ভাই-বোনের মধ্যে ঝর্ণা দ্বিতীয়। মামুনুল হক ওই সময় না’রীর নাম আমেনা তৈয়্যেবা বললেও তার নাম জান্নাত আরা ঝর্ণা।

জান্নাত আরা ঝর্ণার আগে বিয়ে হয়েছে, সেই ঘরে আব্দুর রহমান ও তামীম নামে দুজন পুত্র স’ন্তান আছে। এবার হে’ফাজত নেতা মামুনুল হকের কথিত স্ত্রী জান্নাত আরা ঝর্ণার লেখা ২০০ পৃষ্ঠার ৩টি ডায়েরি খুঁজে পাওয়া গেছে। যাতে রয়েছে চা’ঞ্চল্যকর সব তথ্য। একটি বেস’রকারি টেলিভিশনকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ডায়েরিগুলো তার মায়ের বলে নিশ্চিত করেছেন ঝর্ণার পুত্র আব্দুর রহমান।

ঝর্ণার ডায়েরিতে লেখা, ‘আমাকে বিয়ে না করেই গ্রীনরোডের একটি বাসায় রাখেন মামুনুল হক। আমাকে খরচের টাকাও দিতেন। কিন্তু বিয়ে করে স্ত্রী বানাননি।’

ঝর্ণার ডায়েরিতে লেখা, বিয়ের আশ্বাসের বিনিময়ে অ’বৈ’ধ মে’লামে’শা করতেন মামুনুল যা মেনে নিতে পা’রেননি ঝর্ণা। বিয়ে না করে দীর্ঘদিন ধরে তার সাথে মে’লামে’শা করেছেন মামুনুল হক। বি’বাহবহির্ভুত মে’লামে’শার অনুশোচনার কথাও উঠে এসেছে ঝর্ণার ডায়েরিতে। ডায়েরির পাতায় পাতায় রয়েছে মামুনুলের প্রতিশ্রুতি ভ’ঙ্গের আ’র্তনাদ।

ডায়েরিতে ঝর্ণা লেখেন, আমি তাকে ভালোবাসি না ঘৃ’ণা করি বুঝতে পারছি না। কিন্তু সে আমার জী’বনকে ন’রক বা’নিয়ে ফে’লছে।

ডায়েরিগুলো তার মায়ের বলে নিশ্চিত করে ঝর্ণার বড় ছেলে আব্দুর রহমান বলেন, ‘একজন মহিলার স’ন্তানের জন্ম সাল। তার বিয়ে বি’চ্ছেদ ও তার মনের দুঃ’খের কথা কি অন্য কেউ লেখে। এটা তার বাসা থেকে পাওয়া। আর এটা আমার মায়ের ডায়েরি।’

ঝর্ণা পুত্র আরো বলেন, আমাকে সে (ঝর্ণা) বলেছিলো আমার কিছু ব্য’ক্তিগত ডায়েরি আছে। আমি ডায়েরির বি’ষয়ে শিওর কারণ এটা আমার মায়েরই হাতের লেখা।