নেক সন্তান পেতে যে আমল জরুরি

স্বাধীন নিউজ ২৪.কম
প্রকাশ : ফেব্রুয়ারী 10, 2021 04:49:44 অপরাহ্ন
0
33
ভিউ

ইসলাম ধর্ম অনুযায়ী একমাত্র আল্লাহ এই সমগ্র মহাবিশ্বের মালিক। সৃষ্টিজগতের সবকিছু তার নির্দেশেই পরিচালিত হয়। তিনি কোনো কিছু আদেশ করামাত্রই সেটি হয়ে যায়। আর মহান আল্লাহ সূরা মুমিনের ৬০ নং আয়াতে বলেচেন, তোমাদের পালনকর্তা বলেন, তোমরা আমাকে ডাক, আমি তোমাদের ডাকে সাড়া দেব। অর্থাৎ আল্লাহর কাছে তার বান্দারা সঠিকভাবে কিছু চাইলো আল্লাহ তাকে তা দেবেন। তাই কেউ যদি নেক সন্তান প্রত্যাশা করে তাকে অবশ্যই আল্লাহর নিকট সঠিকভাবে চাইতে হবে। আজকের আয়োজনে থাকছে নেক সন্তান লাভের আমল।

পবিত্র কোরআনে উল্লেখ রয়েছে, বিশিষ্ট সাহাবী হজরত জাকারিয়া আলাইহিস সালাম আল্লাহর নিকট সবসময় নেক সন্তান প্রত্যাশা করতেন এবং আল্লাহ তাকে বার্ধক্যে উপনীত হওয়ার পরও একজন নেক সন্তান দান করেছিলেন। হজরত জাকারিয়া আলাইহিস সালামের সেই কার্যকরী আমল ও দোয়া কবুলের প্রসঙ্গে আল্লাহ তাআলা বলেন- ‘আর যাকারিয়ার কথা স্মরণ করুন, যখন সে তার পালনকর্তার কাছে (দোয়া) আহ্বান করেছিল- হে আমার পালনকর্তা! আমাকে একা রেখো না। তুমি তো উত্তম ওয়ারিস (দানের অধিকারী)।’ (সুরা আম্বিয়া : আয়াত ৮৯)

এই দোয়ার পরই আল্লাহ তাঁকে বাধ্যর্কে দান করেছিলেন ছেলে সন্তান। এ প্রসঙ্গে পবিত্র কুরআনুল কারিমে সূরা আম্বিয়ার ৯০ নং আয়াতে আল্লাহ তাআলা বলেছেন, ‘তারপর আমি তার দোয়া কবুল করেছিলাম, তাকে দান করেছিলাম ইয়াহইয়া এবং তার জন্যে তার স্ত্রীকে প্রসব যোগ্য করেছিলাম। তারা সৎকর্মে ঝাঁপিয়ে পড়ত, তারা আশা ও ভীতি সহকারে আমাকে ডাকত এবং তারা ছিল আমার কাছে বিনীত।’

এছাড়া হাদিসে নেক সন্তান লাবের জন্য নিম্নোক্ত আমলসমূহ করতে বলা হয়েছে
১. সন্তান পাওয়া আশা করতে হবে।
২. দোয়ার আবেদনে ভয় থাকতে হবে।
৩. দোয়ার সময় বিনয়ী হতে হবে।
৪. সব সময় সৎ কাজে নিয়োজিত থাকতে হবে।