ফেঁ’সে যাচ্ছেন এম’পি নূর মোহাম্মদ?

স্বাধীন নিউজ ২৪.কম
প্রকাশ : ফেব্রুয়ারী 9, 2021 07:46:12 অপরাহ্ন
0
628
ভিউ

৬ ফেব্রুয়ারি কি’শোরগঞ্জের কটিয়াদিতে সংগঠিত ঘটনার জে’রে ফেঁ’সে যেতে পারেন ঐ এলাকার এমপি নূর মোহাম্ম’দ। প্রধানমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সভাপতির নিজস্ব উদ্যোগে সেখানে সংগঠিত ঘটনার পূর্ণাঙ্গ তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে। এই সব তথ্য বিশ্লেষণ করে, স’চিব এবং স’রকারি ক’র্মকর্তাদের উপর হা’ম’লার ঘটনায় এ’মপির প্রচ্ছন্ন ম’দদ ছিলো বলে জানা গেছে।

প্রাথমিক তথ্যের ভিত্তিতে, সেখানকার ওসিকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। ইতিমধ্যে দুজনকে গ্রে’প্তার করা হয়েছে। ঐ দিনের ঘটনায় আ’ক্রান্ত অন্তত দুইজন স’রকারি ক’র্মকর্তা বলেছেন ‘কমিউনিটি ক্লিনিকের কাজ বন্ধ করার জন্য যারা এসেছিল, তারা কাজ বন্ধের জন্য এম’পির নি’র্দেশের কথা বলেছেন।’

এ কর্মকর্তারা এটাও বলেছেন ‘দ্বিতীয় দফায় যারা আ’ক্রমণ করেন, তারা আ’ক্রমণের সময় বলেছে, এম’পির নি’র্দেশ ছাড়া এখানে কিছুই হবে না।’ এছাড়াও ঐ ঘটনা যারা মোবাইলে ভিডিও করেছে, তাদের ভিডিও বিশ্লেষণ করে দেখা যাচ্ছে, এখানে বেশ ক’য়েকজন রয়েছে, যারা এম’পি নূর মোহাম্ম’দের লো’ক, বেশ কিছুদিন ধরেই এই এ’লাকায় এম’পি এবং সাবেক আইজির বি’রুদ্ধে নানা রকম অ’ভিযোগ উঠেছিল।

আওয়ামী লীগের স্থানীয় একাধিক নেতা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের কাছে এম’পির বি’রুদ্ধে লিখিত অ’ভিযোগ করেছেন। ঐ অ’ভিযোগে আওয়ামী লীগের ত্যা’গী এবং পরিক্ষিত নেতাদের এমপি হ’য়’রানি করছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে। আওয়ামী লীগের স্থানীয় একজন নে’তা বলেছেন ‘এমপি সাহেব এখানে আলাদা আওয়ামী লীগ গঠন করেছেন।’

আওয়ামী লীগের একজন প্রে’সিডিয়াম সদস্য বলেছেন ‘কি’শোরগঞ্জের যে ঘটনা ঘটেছে, তা অ’নাকাঙ্ক্ষিত দু:খজনক। এটা যারা করেছে, তারা বা’ড়াবাড়ি করেছে। এমপির এটা নিয়ন্ত্রণ করা উচিত ছিলো। এমপি সাহেবের যদি কমিউনিটি ক্লিনিক নিয়ে কোন আ’পত্তি থাকতো, তাহলে তিনি স’রাসরি স’চিবের সঙ্গে কথা বলতে পারতেন। আলাপ আলোচনার মাধ্যমে এই স’মস্যার সমাধান হতো।’

তবে, নূর মোহাম্ম’দ গণমাধ্যমকে বলেছেন ‘এই ঘটনার সঙ্গে মোটেও তিনি জ’ড়িত নয়। এটা একটা সা’জানো নাটক।’ তবে এম’পি এবং স’চিবের বি’রোধ এলাকায় একধরনের অ’স্বস্তি তৈরি করেছে। সূত্রঃ বাংলা ইনসাইডার