স্ত্রী বললেন ‘আমাকে অ”পহ’রণ করা হ’য়নি’, তবুও স্বা’মীর ২০ বছরের কা’রাদ’ণ্ড

স্বাধীন নিউজ ২৪.কম
প্রকাশ : ফেব্রুয়ারী 8, 2021 08:29:04 অপরাহ্ন
0
167
ভিউ

৯ বছরের সংসারে রয়েছে দু’টি স’ন্তান। অথচ স্ত্রী অ’পহরণের মা’মলায় স্বামীকে ২০ বছরের সশ্রম কা’রাদ’ণ্ড দিয়েছেন আ’দালত। স’ন্তান নিয়ে বার বার আ’দালতে চক্কর কাটছেন স্ত্রী। আইনজীবীরা বলছেন, রায় দেওয়ার ক্ষেত্রে বিচারিক মনোভাব প্রয়োগ করা হয়নি।

প্রথম স্বা’মীর নি’র্যাতন স’ইতে না পেরে ঘর ছা’ড়েন বরগুনার ফাতিমা। কিছুদিন পর স্বা’মীকে তা’লা’ক দেন তিনি। বিয়ে করেন শাহ আলমকে। ৯ বছর ধরে সুখে শান্তিতেই ছিলেন তারা। আরাফাত ও আরিয়ান নামে ৭ ও ৫ বছরের দুটি স’ন্তান রয়েছে তাদের।

ফাতিমা যখন দ্বিতীয় বিয়ে করেন তখন প্রাক্তন স্বা’মী তার স্ত্রীকে অ”পহরণের মা’মলা করেন শাহ আলমের বি’রুদ্ধে। সেই মা’মলার বিচার চলেছে ৯ বছর ধরে। একাধিকবার ফাতিমা আ’দালতে গিয়ে বলেছেন, দ্বিতীয় স্বামী শাহ আলম তাকে অ”পহরণ করেননি। কিন্তু কে শোনে কার কথা।

দীর্ঘ শুনানি শেষে স্ত্রীকে অ”পহরণের ‘দায়ে স্বা’মী শাহ আলমকে ২০ বছরের সশ্রম কা’রাদ’ণ্ড দেন আ’দালত। অ”পহরণে স’হযোগিতার দায়ে আরো ৭ জনকে ১৪ বছর করে কা’রাদ’ণ্ড দেওয়া হয়েছে।

ফাতিমা জ’বানব’ন্দিতে উল্লেখ করেন, ‘আমাকে শাহ আলম অ”পহরণ করে নাই। শাহ আলমকে আমি মাস খানেক আগে স্বেচ্ছায় বিয়ে করেছি। ২০০৭ সালে জাকিরের সঙ্গে বিয়ে হয়। জাকিরের অ’ত্যা’চারের অ’তি’ষ্ঠ হয়ে শাহ আলমকে বিয়ে করি। জাকিরকে ৪/৫ মাস পূর্বে তা”লা’ক দেই। সে এখন আর আমার স্বামী নয়। আমাকে কেউ অ”পহরণ করে নাই।’

যাকে অ’পহ’রণ নিয়ে এত কাহিনী, তিনি জ’বানব’ন্দি দেয়ার পরও কেনো এমন রায়? প্রশ্নের উত্তরে আ’সামির আইনজীবী জানান, এ মা’মলায় বিচারিক মনোভাব দেখাননি বিচারক।

আ’সামিপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট শিশির মনির বলেন, ‘অ’ পহরণ মা’মলার মূল বি’ষয়বস্তু হলো ২২ ধারার জ’বানব’ন্দি। ২২ ধারার জ’বানব’ন্দিতে ভি’কটিম কি বলল, এটাই মূল আলোচ্য বি’ষয়। এবং ভি’কটিমের বয়স ২৭ বছর তার মানে ভি’কটিম এডাল্ট। ভি’কটিম এসে আ’দালতে বলছে যে, ‘আমি অ’ পহৃত হয়নি। আমি স্বেচ্ছায় বি’বাহবন্ধনে আ’বদ্ধ হয়েছি।’ তাহলে সেখানে আর কিছু থাকার কথা না। এ মা’মলায় অনিবার্যভাবে খালাস দেওয়া ছাড়া আর কোনো অ’পশনই থাকার কথা না।’

মঙ্গলবার (৯ ফেব্রুয়ারি) শাহ আলমের জা’মিন চেয়ে করা আবেদনের শুনানি হবে উচ্চ আ’দালত।