শি’শুকে ধ”ণের পর হ’’ত্যা : চা’চাসহ দু’জনের ফাঁ’সি

স্বাধীন নিউজ ২৪.কম
প্রকাশ : ফেব্রুয়ারী 3, 2021 12:41:01 অপরাহ্ন
0
37
ভিউ

সারাদেশঃ শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ উপজে’লার সখিপুর থানার সরদারকান্দি গ্রামের শি’শু লিজা আক্তারকে (১৩) গণধ”ণ ও হ’’ত্যা মা’মলায় দুজনের মৃ’ত্যুদ’ণ্ড দিয়েছেন আ’দালত। শরীয়তপুর নারী ও শি’শু নি’র্যাতন দ’মন ট্রাইব্যুনালের বিচারক আব্দুস ছালাম খান বুধবার (৩ জানুয়ারি) দুপুরে এ আদেশ দেন। এছাড়া শি’শুটির ম’রদেহ গু’ম করার অ’পরাধে দুজনকে ৭ বছরের সশ্রম কা’রাদ’ণ্ড ও ২০ হাজার টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে ছয় মাস করে কা’রাদ’ণ্ড দিয়েছেন আ’দালত।

দ’ণ্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তিরা হলেন, লিজার চাচা ফরিদ শেখ (৩৪) ও চাচাতো ভাই জাকির শেখ (২৮)। নারী ও শি’শু নি’র্যাতন দ’মন ট্রাইব্যুনালের বিশেষ কৌঁসুলি (পিপি) ফিরোজ আহমেদ বলেন, ২০১৭ সালের ১৫ জুলাই শনিবার বিকেলে স্কুল ছুটির পর বাইসাইকেল নিয়ে বাড়ির সামনের রাস্তায় বের হয় লিজা। সন্ধ্যা হয়ে গেলে বাড়িতে না ফেরায় খোঁজাখুঁজি করে তার পরিবার। পরে সখিপুর থানায় একটি জি’ডিও করা হয়।

এক সপ্তাহ পর বেলা সাড়ে ১১টার দিকে সখিপুর ইউনিয়নের ছৈয়ালকান্দি গ্রামের একটি পাটখেতের পানিতে লিজার ম’রদেহটি ভাসতে দেখে স্থানীয়রা। সখিপুর থানায় খবর দিলে লিজার ম’রদেহ উ’দ্ধার করে পুলিশ। পরে লিজার বাবা লেহাজ উদ্দিন সরদার বা’দী হয়ে মা’মলা করেন। জানা যায়, ম’য়নাত’দন্তের জন্য ম’রদেহটি শরীয়তপুর সদর হাসপাতাল ম’র্গে পাঠায় পুলিশ। কিন্তু ম’য়নাত’দন্তের জন্য ম’রদেহ ম’র্গে নিয়ে গেলে লিজার জরায়ু, লিভার, ফুসফুস, কিডনি ও হৃদযন্ত্রসহ শরীরের গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ পাননি ম’য়নাত’দন্তকারী চিকিৎসক।

পরে ডিএনএ টেস্ট করার জন্য শরীরের কিছু অংশ ঢাকা মেডিকেল ও মহাখালীতে পাঠানো হয়। ত’দন্ত শেষে সখিপুর থানার পুলিশ দু’জনের বি’রুদ্ধে আ’দালতে অ’ভিযোগপত্র দাখিল করেন। দুজনের বি’রুদ্ধে আ’দালতে অ’ভিযোগ গঠন করা হয়। রায় ঘোষণার পর তাদের কা’রাগারে পাঠিয়ে দেয়া হয়। অপরদিকে আ’সামিপক্ষের আইনজীবী শাহ আলম জানান, তারা রায়ে সন্তুষ্ট হতে পারেননি। এ রায়ের বি’রুদ্ধে তারা উচ্চ আ’দালতে আপিল করবেন।