কে মি’থ্যাবাদী- পু’লিশ নাকি রেব? প্রশ্ন নুরের

স্বাধীন নিউজ ২৪.কম
প্রকাশ : জানুয়ারী 7, 2021 08:03:14 অপরাহ্ন
0
29
ভিউ
ফাইল ছবি

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ঢাকসু) সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর বলেছেন, ‘রেবের অ’ভিযানে হাজী সেলিমের পুত্র ইরফান সেলিমকে আ’ট’ক করার পরে আইনবহির্ভূত বিদেশি ম’দ, অ’স্ত্র ও অকিট’কিসহ অনেক অ’বৈধ দ্রব্য সংরক্ষণের দায়ে দুটি মা’মলার একটিতে ৬ মাস এবং আরেকটি মা’মলায় ১ বছরের কারাদ’ণ্ড দেয়া হয়েছে। এই ঘটনার আলোচনা শেষ হওয়ার পরেই পু’লিশ তাকে মা’মলা থেকে অব্যাহতি দিয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘এই প্রসঙ্গে পু’লিশ বলছে যে, সেরকম কোনও অ’ভিযোগ পাওয়া যায়নি। এখন কে মিথ্যাবাদী- পু’লিশ নাকি রেব? কে প্রতারক- পু’লিশ নাকি রেব? এখানে রেব যদি প্রতারণা ও নাট’ক করে থাকে; তাহলে এ পর্যন্ত রেব কত প্রতারণা ও নাট’ক করেছে? আর যদি ধরে নেই ক্ষমতাসীন দলের প্রতারক-দস্যুদের বাঁ’চাতে পু’লিশ এই মিথ্যা প্রতিবেদন দিয়েছে। তাহলে পু’লিশ গত ১২ বছরে এমন কত প্রতিবেদন দিয়েছে পু’লিশ?’

বৃহস্পতিবার (০৭ জানুয়ারি) রাজধানীর তোপখানায় শি’শুকল্যাণ মিলনায়তনে লেবার পা‌র্টির উদ্যোগে ফেলানী দিবস উপল‌ক্ষে এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

নুর বলেন, ‘বিরোধী দলের নেতাকর্মীরা দীর্ঘদিন যাবত ভোট দিতে না পারার অ’ভিযোগ করলেও এখন সরকারি দলের নেতারা এই অ’ভিযোগ করছেন।’

তিনি বলেন, ‘চুনোপুঁটি কোনও নেতা নয়, সরকারি দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের ভাই উৎকণ্ঠায় রয়েছেন। ডিসির সাথে মিটিং ছিল, সেখান তাকে কথা বলতে দেয়নি। তিনি খোলা মাঠে নেতাকর্মীদের বলেছেন, ‘এখন ভোট হয় না। শেখ হাসিনা মানুষের ভাতের অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে পারলেও ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে পারেননি‘। এটা ওবায়দুল কাদেরের ভাইয়ের কথা। ওবায়দুল কাদেরের ভাই সরকারি দলের এমন পর্যায়ে থেকেও ভোট নিয়ে শ’ঙ্কা প্রকাশ করেছেন।’

ফেনীর নিজাম হাজারীর প্রসঙ্গ টেনে ওবায়দুল কাদেরর ভাই বলেছেন, ‘এই ধরনের দুষ্ট লোক আওয়ামী লীগকে খেয়ে ফেলছে। আওয়ামী লীগ এখন দুষ্ট লোকের আখড়ায় পরিণত হয়েছে’।’

বিএনপির প্রতি ইঙ্গিত করে ডাকসুর সাবেক এ ভিপি বলেন, ‘দেশে বড়ো বড়ো রাজনৈতিক দলের নেতারা বলছেন, ৩০ ডিসেম্বর ছিল ভোট ডা’কাতির নির্বাচন, ভোটাধিকার হ’রণের নির্বাচন। তাহলে আপনারা কেন সেদিন রাজপথে নামেননি? আম’রা ছোট পরিসরে হলেও আ’ন্দোলন করেছি; কিন্তু আপনারা এতো বড়ো দল হয়েও কেন শুধু প্রেসক্লাবে পড়ে থাকবেন? সেদিন কেন বি’ক্ষোভ মিছিল করেননি?’

তিনি আরও বলেন, ‘বর্তমান সরকার আন্তর্জাতিকভাবে বলেন বা দেশীয়ভাবে বলেন, তারা নানা দিক থেকেই চাপে রয়েছে। তাদের পায়ের নিচ থেকে মাটি সরে গেছে। প্রকাশ্যে বলছি, আম’রা এই সরকারের পতন চাই। এই ফ্যাসিবাদী সরকারের পতনের জন্য যা করা দরকার আম’রা তাই করবো। সুতরাং এটা কোনও ষড়যন্ত্র নয়। তথাকথিত সুবিধাবাদীরা বলছেন, সরকার হটানোর নীলনকশা চলছে। নীলনকশা কেন, এটাতো সাজানো হচ্ছে। এই অ’বৈধ ভোটারবিহীন সরকারকে হটাতে সারা দেশের জনগণকে নিয়ে যার যার দল থেকে ঐক্যবদ্ধ আ’ন্দোলন করতে হবে।’

বাংলাদেশ লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডা. মোস্তাফিজুর রহমান ই’রানের সভাপতিত্বে এসময় আরও বক্তব্য রাখেন- গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, এনডিএম’র চেয়ারম্যান ববি হাজ্জাজ ও গণস্বাস্থ্যের মিডিয়া উপদেষ্টা জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু ও কৃষকদ‌লের আহ্বায়ক ক‌মি‌টির সদস‌্য লায়ন মিয়া মো. আনোয়ার প্রমুখ।